২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় সরকারি মেডিকেলে চান্স পেয়েছেন সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার হতদরিদ্র কৃষকের ছেলে মো. আরিফুল ইসলাম।

আরিফ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ কেন্দ্র থেকে ভর্তি পরিীক্ষায় অংশ নিয়ে ৭১.২৫ নম্বর পেয়েছেন। তার মেধাক্রম ২

হাজার ৩৩৩। সে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে পড়ার সুযোগ পেয়েছেন।আরিফুল শাহজাদপুর উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের আগনুকালী

গ্রামের মো. আবুল কাশেম ও রেনু বেগমের ছেলে। ৪ সন্তানের মধ্যে আরিফুল সবার ছোট । পরিবারের একমাত্র

উপার্জনক্ষম ব্যক্তি আরিফুলের পিতা একজন কৃষক। বাড়িতে রয়েছে একটি টিনের ঘর। সেই একটি ঘরেই থাকেন

পরিবারের সবাই। বোন দুইটা বিয়ে হয়েছে, আরিফুলের বড় ভাই আবু রায়হান পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে ম্যানেজমেন্ট এর উপর মাস্টার্স করছেন।

জানা গেছে, ছোটবেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবী, সে আগনুকালী পশ্চিম পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসি

পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৮৩ পেয়েছে। খাষসাতবাড়ীয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ ও ট্যানেলপুলে বৃত্তি

পায় সে। এসএসসিতে জিপিএ ৫ ও রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন।

নিজের সফলতা সম্পর্কে আরিফুল জানান, স্কুল-কলেজে পড়ালেখার সময় মন চাইলে একটা ভালো পোশাক কিনতে

পারতাম না। কারণ আমার জন্ম গরিবের ঘরে। মা-বাবা খুশি হয়ে যা কিনে দিতেন, আমি তাতেই খুশি থাকতাম। স্কুল ও কলেজে থাকতে নানা ভাবে স্যাররা সহযোগিতা করেছেন। তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

স্থানী মামুন বিশ্বাস জানান, আরিফুল আমার গ্রামের ছেলে, খুবই ভাল একজন ছেলে। ছোট বেলা থেকে দেখেছি খুব

ভদ্র। আরিফুলের বাবা অনেক কষ্ট করে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছেন৷ আরিফুল পড়ালেখা শেষ করে ভালো

একজন চিকিৎসক হয়ে দেশ ও দেশের পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য সারাজীবন কাজ করবে বলে আমি আশাবাদী।

আগনুকালী পশ্চিম পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় (অবসর প্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মাহবুবুল হোসেন জোস্না

বলেন, আরিফুল অত্যন্ত মেধাবী ছেলে। সে সুযোগ পাওয়ায় আমরা গর্বিত। সে আমাদের বিদ্যালয়সহ ইউনিয়নবাসীর মুখ উজ্জ্বল করেছে।

আরিফুল ও তার পরিবার দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। পড়াশুনা সম্পন্ন করে ভালো একজন চিকিৎসক হয়ে দেশ ও দেশের পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য সারাজীবন কাজ করতে পারে যেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *