1. [email protected] : Nirob Ahmed : Nirob Ahmed
  2. [email protected] : Nur Mohammad : Nur Mohammad
রক্তাক্ত রোনালদো মেজাজ হারিয়ে ভাঙলেন ভক্তের মোবাইল
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৮ অপরাহ্ন

রক্তাক্ত রোনালদো মেজাজ হারিয়ে ভাঙলেন ভক্তের মোবাইল

  • সময় : রবিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩৭ ০ পঠিত
রোনালদো

সেরা চারে থাকতে হলে এভার্টনের বিপক্ষে জয়ই ছিল সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। কিন্তু এমন ম্যাচেই কি না ১-০ গোলে হেরে বসে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড! পুরো ম্যাচে একের পর এক চেষ্টা করে গেছেন রোনালদোরা, কিন্তু গোলের দেখাটাই পেলেন না তারা।

রোনালদো

উল্টো ম্যাচ শেষে দেখা গেলো রক্তাক্ত রোনালদো। ম্যাচে শেষে রোনালদো যখন তার পায়ের গার্ড খোলেন, তখন দেখতে পান, সেখানে আঘাতের চিহ্নের সঙ্গে রক্ত মাখামাখি হয়ে আছে। পরাজয়ের কারণে তার হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পা থেকেও রক্তক্ষরণ হচ্ছিল সিআর সেভেনের।

একে তো হারের কারণে মেজাজ হারিয়ে বসে আছেন, তারওপর পা রক্তাক্ত। মাঠ থেকে বের হওয়ার পথে দেখা যায় তাকে খুঁড়িয়ে হাঁটতে। এ সময় একটি অনাকাংখিত ঘটনাও ঘটিয়ে বসেন রোনালদো। মাঠ থেকে বের হওয়ার সময় টানেলের মুখে এক তরুণ ভক্তের মোবাইল আছাড় দিয়ে ভেঙে ফেলে দেন তিনি।

এ নিয়ে তুমুল সমালোচনার শিকার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। শেষমেষ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এ ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। সেই ভক্তের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন। তবে ম্যানইউ বলছে, তারা এই ঘটনার তদন্ত করে দেখবে।

গোডিসন পার্কে এভার্টনের কাছে ১-০ গোলে হারের পর টানেল থেকে বের হওয়ার সময় রোনালদোর ভক্তের হাত থেকে মোবাইল আছাড়া ফেলে দেয়ার ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ৩৭ বছর বয়সী এই ফুটবলার ভক্তের হাতে থাকা মোবাইলকে আছাড়া মেরে নিচে ফেলে দেন।

পরে ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক পোস্টে রোনালদো বলেন, ‘কঠিন সময়ে মেজাজ ঠিক রাখা সত্যিই খুব কঠিন। এই কঠিন মুহূর্তটারই আমরা মুখোমুখি হয়েছি। তবুও আমাদের সব সময়ই সম্মানজনক আচরণ করতে হবে। ধৈর্য্য ধরতে হবে। একই সঙ্গে সকল তরুণদের জন্যই আমাদেরকে উদাহরণ সৃষ্টি করতে হবে, যারা এই সুন্দর খেলাটাকে পছন্দ করেন।’

‘আমি এই বাজে ঘটনায় ক্ষমাপ্রার্থনা করতে চাই এবং যদি সম্ভব হয়, আমি চাই এই সমর্থককে আমন্ত্রণ জানাতে। ফেয়ার প্লে এবং স্পোর্টসম্যানশিপ দেখাতে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে তাকে একটি ম্যাচ দেখাতে চাই আমি।’

১৪ বছর বয়সী সেই ফুটবল সমর্থকের নাম জ্যাক হার্ডিং। তার মা সারাহ কেলি মিডিয়াকে বলেন, ‘খেলা শেষ হওয়ার পর ম্যানইউ ফুটবলাররা যখন মাঠ ছেড়ে যাচ্ছিল, তখন আমার ছেলে তাদের ভিডিও করছিল। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের ভিডিও করছিলো, এ সময় রোনালদো পার হচ্ছিল।

আমার ছেলেও অনেকটা ঝুঁকে গিয়ে ভিডিও করছিল। কারণ, ওই সময় রোনালদো নিচের দিকে ঝুঁকে গিয়ে নিজের মোজার গার্ড হাতে নিয়ে হাঁটতে শুরু করেন। ওই সময় দেখা যায় তার পা রক্তাক্ত। আমার ছেলে সেটাকেই ভিডিও করার চেষ্টা করছিল। সে কোনো কথাই কিন্তু বলেনি। রোনালদো দ্রুত হেঁটে যাচ্ছিল। এ সময় হঠাৎ করেই মেজাজ গরম করে ফেলেন এবং মোবাইলটাকে আছাড় মেরে ফেলে দেন আমার ছেলের হাত থেকে।’

এখান থেকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

এই জাতীয় আরে খবর
© All rights reserved © 2021 @CTnews Sports
Design CTnews Sports