1. [email protected] : Nirob Ahmed : Nirob Ahmed
  2. [email protected] : Nur Mohammad : Nur Mohammad
ভিয়ারিয়ালের মিছে প্রত্যাবর্তন, ফাইনালে লিভারপুল
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৬ অপরাহ্ন

ভিয়ারিয়ালের মিছে প্রত্যাবর্তন, ফাইনালে লিভারপুল

  • সময় : বুধবার, ৪ মে, ২০২২
  • ২৮ ০ পঠিত
লিভারপুল

আরো একটা মহাঅঘটনের আশঙ্কা জাগিয়েছিল ভিয়ারিয়াল। কিন্তু রূপকথা প্রতিদিন হয় না। ইংলিশ জায়ন্ট লিভারপুল সেটাই মনে করিয়ে দিল তাদের।

ভিয়ারিয়ালের মাঠে গিয়ে দুই গোলে পিছিয়ে থেকেও থ্রিলার জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে অল রেডরা। মঙ্গলবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে সালাহ-মানেদের জয়টা ৩-২ গোলে।

দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ইউরোপিয়ান শীর্ষস্থানীয় প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠে গেল লিভারপুল।

আগামী ২৮ মে প্যারিসে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের সবচেয়ে সফল দল রিয়াল মাদ্রিদ কিংবা কখনো শিরোপা জিততে না পারা ম্যানচেস্টার সিটি। দল দুটি আজ রাতে শেষ চারের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হবে।

নক আউট পর্বের শুরুতে ভিয়ারিয়াল বিদায় করেছে ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসকে। কোয়ার্টার ফাইনালে এসে দলটি ঘাতক হয়ে উঠল হট ফেভারিট বায়ার্ন মিউনিখের।

স্পেনের মাঝারি সারির ক্লাবটি সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ২-০ গোলে হারলেও হাল ছাড়ল না। দ্বিতীয় লেগে ম্যাচের প্রথম ভাগে দুই গোল করে লিভারপুলকে চমকে দেয় তারা। চমকটা শেষ অবধি স্থায়ী হলো না।

নিজেদের মাঠ অ্যানফিল্ড স্টেডিয়ামে প্রথম লেগে ২-০ গোলে জয়ের পরও স্বস্তিতে ছিলেন না লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। জার্মান কোচ কেন শিষ্যদের সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে বলেছিলেন সেটা দ্বিতীয় লেগের প্রথম ভাগেই বোঝা গেল।

পরিচিত দর্শকদের সামনে ম্যাচের তিন মিনিটেই জালের ঠিকানা খুঁজে নেয় ভিয়ারিয়াল। স্বাগতিকদের লিড এনে দেন বুলায়ে দিয়া।

বিরতির মিনিট পাঁচেক আগে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফ্রান্সিস কুকেলিন। দুই লেগ মিলিয়ে ম্যাচ তখন ২-২ সমতা। রীতিমতো উজ্জীবিত হয়ে উঠল ভিয়ারিয়াল। তাদের এমন প্রত্যাবর্তনের নেপথ্য নায়ক উনাই এমেরি। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতার ’মাস্টার মাইন্ড’ শেষ খেলাটা দেখাতে পারলেন না। দ্বিতীয়ার্ধেই খেই হারায় স্প্যানিশ কোচের দল। দুর্দান্তভাবে ফিরে আসে লিভারপুল।

প্রথমার্ধটা যদি ভিয়ারিয়ালের হয়, দ্বিতীয়ার্ধের পুরো সময়টা নিজেদের করে নিয়েছে লিভারপুল। ৬২ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান তারকা রবার্তো ফিরমিনো গোল করে স্বাগতিকদের কঠিন বাস্তবতা বুঝিয়ে দেন। পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে অল রেডদের সমতায় ফেরান রুবিন দিয়াজ। এই গোলেই শেষ হয়ে গেল ভিয়ারিয়ালের স্বপ্ন। ১৬ বছর পর সেমিফাইনালে ওঠা দলটার বিদায় ঘণ্টা বাজতে শুরু করে।

৭৪ মিনিটে প্রায় একক প্রচেষ্টায় সাদিও মানে ভিয়ারিয়াল রক্ষণ ভাগ ও গোলরক্ষককে ঘোল খাইয়ে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন। প্রথম লেগেও গোল করেছিলেন তিনি। স্বপ্নের শুরু করা স্বাগতিকরা ম্যাচটা আবার পুরো দল নিয়ে শেষ করতে পারেনি। ৮৫ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড (লাল কার্ড) দেখে বহিষ্কার হন এতিয়েন কাপাস। একই সঙ্গে ভিয়ারিয়ালও ছিটকে গেল ইউরোপের এলিট ক্লাব প্রতিযোগিতা থেকে।

এখান থেকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

এই জাতীয় আরে খবর
© All rights reserved © 2021 @CTnews Sports
Design CTnews Sports