1. [email protected] : Nirob Ahmed : Nirob Ahmed
  2. [email protected] : Nur Mohammad : Nur Mohammad
বছরটা ছিল মেহেদি হাসান মিরাজের
বুধবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন

বছরটা ছিল মেহেদি হাসান মিরাজের

  • সময় : সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১০ ০ পঠিত
মিরাজ

ভারতের বিপক্ষে হার দিয়ে শেষ হলেও, ব্যক্তিগতভাবে দারুণ একটা বছর পার করলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। বল হাতে দলের হয়ে শীর্ষ এই উইকেটশিকারী, অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সে দেশের ক্রিকেটকে নতুন করে আশা দেখাচ্ছেন। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্ট থেকে শুরু করে আফগান প্রত্যাবর্তন কিংবা ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের নায়ক মিরাজের জন্য ২০২২ সালটা ছিলো বিশেষ কিছু।

শেষটা রাঙাতে পারলেন না মেহেদী হাসান মিরাজ। ঢাকা টেস্টে নিজের সর্বোচ্চটা দিয়েও, পরাজিতদের তালিকায় নাম এই অলরাউন্ডারের।ম্যাচটা জিতলে, আরও একবার জয়ের নায়কের মুকুট উঠতো তার মাথায়।

ক্যারিয়ারে ২০২২ সালটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে মিরাজের। জাতীয় দলে অভিষেকের পর, এমন বছর এবারই প্রথম কাটালেন। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই সমান অবদান, ‘সাকিব-পরবর্তী’ যুগে, সম্ভাবনা রয়েছে দেশের ক্রিকেটের সবথেকে বড় তারকা হবার। অবশ্য সে সম্ভাবনার জন্ম হয়েছে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখার আগেই। তবে এই পঞ্জিকাবর্ষে, তিন ফরম্যাট মিলিয়ে মিরাজ যেভাবে পারফর্ম করেছেন, তাতে আশায় বুক বাধতেই পারেন টাইগার সমর্থকরা।

টেস্ট, টি-টোয়েন্টি আর ওয়ানডে মিলে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী। শেষ বছরে ৫০ ওভারের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ গড়ের মালিক। এই ফরম্যাটে সর্বোচ্চ ছক্কা মারার রেকর্ডটাও মিরাজের দখলে। লম্বা সময় ধরে বাংলাদেশ যে একজন ফিনিশারের জন্য অভাবে ভুগেছেন, ছোটখাটো গড়ন নিয়েই এই ক্রিকেটার, সে শূন্যতা পূরণ করছেন। যিনি কেবল চার-ছক্কাই হাঁকাতে পারেন না, ম্যাচ সিচুয়েশন বুঝে বাড়াতে পারেন দলের রানের গতিটা।

বছরের শুরুতে মাউন্ট মঙ্গানুইতে ইতিহাস গড়ে টাইগাররা। সে জয়ে বড় ভূমিকা ছিল মিরাজের। বল হাতে প্রথম ইনিংসে তিন উইকেট, এরপর ব্যাট হাতে গুরুত্বপূর্ণ ৪৭ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করার সুযোগ হয়নি, তবে বল হাতে নেন আরও এক উইকেট।

এরপর আফগানদের বিপক্ষে প্রত্যাবর্তনের গল্পটা তো নিঃসন্দেহে দেশের ক্রিকেটের স্মরণীয় এক ঘটনা। সপ্তম উইকেটে আফিফ-মিরাজের ১৭৪ রানের জুটি জয় এনে দেয় বাংলাদেশকে। এরপর সে ম্যাচেই বল হাতে আলো ছড়ান এই অলরাউন্ডার।

বছরের শেষে ভারত-বধ। ওয়ানডে সিরিজে মূলত মিরাজের কাছেই আত্মসমর্পণ করে ম্যান ইন ব্লু’রা। দুই ম্যাচেই ব্যাট হাতে একাই ম্যাচ জিতিয়েছেন এই ক্রিকেটার। এরপর টেস্টে বল হাতে আলো ছড়ালেও, তা যথেষ্ট ছিল না দলের জয়ের জন্য। তবে শেষের গল্পটা যেমনই হোক না কেন, ক্যারিয়ার সেরা এক বছর পার করলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

২০২২ সালেে এ টাইগার অলরাউন্ডার ৮ টেস্টে শিকার করেছেন ৩১ উইকেট। ১৫ ইনিংসে তার রান ১৮৫। ওয়ানডেতে ম্যাচে নিজের ঝুলিতে পুরেছেন ২৪ উইকেট। ৯ ইনিংস ব্যাট করে এক সেঞ্চুরি ও এক হাফ সেঞ্চুরিসহ ৬২.৮০ গড়ে করেছেন ৩১৪ রান। আর টি-টোয়েন্টিতে ৬ ম্যাচে ৪ উইকেট তোলার পাশাপাশি ২০.৩৩ গড়ে করেছেন ১২২ রান।

এখান থেকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

এই জাতীয় আরে খবর
© All rights reserved © 2021 @CTnews Sports
Design CTnews Sports