1. [email protected] : Nirob Ahmed : Nirob Ahmed
  2. [email protected] : Nur Mohammad : Nur Mohammad
জোড়া সেঞ্চুরিতে জিম্বাবুয়ের জাদুকরী জুটি
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

জোড়া সেঞ্চুরিতে জিম্বাবুয়ের জাদুকরী জুটি

  • সময় : শুক্রবার, ৫ আগস্ট, ২০২২
  • ২৪ ০ পঠিত
সেঞ্চুরিতে

বাংলাদেশের দেওয়া বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে জোড়া সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন জিম্বাবুয়ের দুই ব্যাটার সিকান্দার রাজা এবং ইনোসেন্ট কাইয়া। মাত্র ৮১ বলে সেঞ্চুরি করেন সিকান্দার রাজা। এরপরপরই ইনোসেন্ট কাইয়া সেঞ্চুরি তুলে নেন ১১৫ বলে। তাদের চতুর্থ উইকেট জুটিতে আসে ১৭২ বলে ১৯২ রান।

মোসাদ্দেকের বলে ১২২ বলে ১১০ রান করা কাইয়া আউট হলে ভাঙে এই জুটি। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের চাই ৪৫ বলে ৪২ রান।

বিশাল রান তাড়ায় নেমে শুরুতেই মুখ থুবড়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান আর শরীফুল ইসলামের সৌজন্যে ৬ রানে পতন হয় ২ উইকেটের। রেজিস চাকাভাকে (২) বোল্ড করে শুরুটা করে মুস্তাফিজ। এরপর শরীফুলের বলে মোসাদ্দেকের তালুবন্দি হন তারিশাই মুশকান্দা (৪)।

দ্রুত দুই উইকেট হারানোর ধাক্কা সামলানোর চেষ্টা শুরু করেন ইনোসেন্ট কাইয়া এবং ওয়েসলি মাধভেরে। দুজনে গড়েন ৪২ রানের জুটি। ডাবলস নিতে গিয়ে ভুল বোঝাবুঝিতে রানআউট হয়ে যান মাধভেরে (১৯)। উইকেটে আসেন অল-রাউন্ডার সিকান্দার রাজা।

একপ্রান্ত আগলে রাখা ইনোসেন্ট কাইয়া ৬৬ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটি। ব্যক্তিগত ৪৩ রানে তাসকিনের বলে ক্যাচ দিয়েও তাইজুলের কল্যাণে বেঁচে যান রাজা।

এরপর মুস্তাফিজুর রহমানকে মিড অফ দিয়ে উড়িয়ে ৫৭ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারের ২১তম ফিফটি। দুজনের জুটি একশ ছাড়িয়ে তরতর করে এগোতে থাকে। ৩৩ ওভারের শেষ বলে কাইয়ার ফিরতি ক্যাচ নিতে গিয়ে চোট পান শরীফুল। তাকে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয়!

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ উইকেটে ৩০৩ রানের বড় স্কোর গড়ে বাংলাদেশ। ফিফটি করেন প্রথম চার ব্যাটার। এর মাঝে লিটন কুমার দাস ক্যারিয়ারের ৭ম সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু পেশিতে টান লাগায় ৮১* রানে অপরাজিত থেকেই তাকে স্ট্রেচারে শুয়ে মাঠ ছাড়তে হয়। সতর্ক শুরুর পর রানের গতি বাড়ান তামিম ইকবাল আর লিটন। সিকান্দার রাজার বলে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেওয়ার আগে তামিম করেন ৮৮ বলে ৯ চারে ৬২ রান। এই ইনিংস দিয়েই তিনি প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ওয়ানডেতে ৮ হাজার রানের মাইলফলক পেরিয়ে যান।

বাংলাদেশের ওপেনিং জুটিতে আসে ১১৯ রান। এরপর আরও দুই ব্যাটার পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস খেলেছেন। তাদের মাঝে চমকে দিয়েছেন এনামুল হক বিজয়। তিন বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরেই খেলেছেন ৬২ বলে ৬ চার ৩ ছক্কায় ৭৩ রানের চমৎকার ইনিংস। মিল্টন শুম্বাকে ডাউন দ্য উইকেটে ছক্কা মেরে ফিফটি পূরণ করেছেন ৪৮ বলে। এরপর দেখান আগ্রাসী ব্যাটিং। ইনিংসের শেষ দিকে ফিফটি করেন মুশফিকুর রহিম। তিনি ৪৮ বলে ফিফটি করার পর ৫২* রানে অপরাজিত থাকেন। মাহমুদউল্লাহ অপরাজিত থাকেন ২০* রানে।

এখান থেকে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন

এই জাতীয় আরে খবর
© All rights reserved © 2021 @CTnews Sports
Design CTnews Sports